প্রধানমন্ত্রীর প্রতি এক তরুণের লেখা খোলা চিঠি ।

প্রিয় প্রধানমন্ত্রী,
সালাম নিবেন । অশা নয় বিশ্বাস করি ভাল আছেন । জানি এত ছোট মুখের কতা এত বড় কানে গিয়ে পৌছোবে না । তবুও লিখতে বসলাম । আপনি আমাদের দেশের প্রধান, ১৬ কোটি মানুষের প্রতিনিধি । এই ১৬ কোটি মানুষের ভালবাসা , বিশ্বাস আর গণতান্ত্রিক ভোটাধিকার চর্চাই পৌছে দিয়েছে আপনাকে ক্ষমতার শীর্ষে । আপনার নির্বাচনী অঙ্গীকার, দেশকে বদলে দেওয়ার স্লোগান, ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন সব কিছুই ছিল এ দেশের মানুষের পরম আকাঙ্খিত । দেশের দরিদ্র, ক্ষুদার্ত, নিপীড়িত, অসহায়, শ্রমিক, কর্মজীবী, ছাত্র, নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত, উচ্চবিত্ত সব শ্রেণীর মানুষই স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল । পরিবর্তনের স্লোগান সবার হৃদয়ে এক নতুন বাংলাদেশের জন্ম দিতে শুরু করেছিল । আর আমরা লক্ষ লক্ষ তরুণরা পেয়েছিলাম এক সীমাহীন আত্নবিশ্বাস । দেশ নিয়ে আমাদের স্বপ্ন ধীরে ধীরে আকাশ ছোয়াঁ হতে যাচ্ছিল । আমরা বিশ্বাস করতে শুরু করেছিলাম হ্যা আমরা সত্যি এগিয়ে যাচ্ছি উন্নয়নের পথে । সময়ের সাথে সাথে আমরাও তালা মিলিয়ে চলতে শুরু করেছি । শিক্ষা-দীক্ষা, প্রযুক্তি, রাজনীতি, অর্থনীতি সব দিক দিয়েই আমরা একটি উন্নত জাতিতে পরিণত হব মিশন ২০২১ এর পূর্বেই । কিন্তু আজ ১৬ কোটি মানুষের সব স্বপ্নই এলোমেলো হয়ে যাচ্ছে । এখন কেউ আর স্বপ্ন দেখতে সাহস পায় না । কিভাবে সাহস পাবে ? যখন মনের অজান্তেই সকল স্বপ্ন গুম হয়ে যায় । শতবার চেষ্টা করলেও সেই গুম হয়ে যাওয়া স্বপ্ন আর ফিরে আসে না । কিভাবে আসবে ? যখন মানুষের নিজের নিরাপত্তাই হুমকির মুখে । “বাসায় থাকলে খুন, বাইরে গেলে গুম ” এই দ্বিদা দন্দে যখন প্রত্যেকটা মানুষের দিন-রাত কাটে, তখন দেশ নিয়ে স্বপ্ন  দেখাত বিলাসিতা । নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে  বেচেঁ  থাকাই যেখানে প্রশ্নের সম্মুখীন , দেশ-জাতি নিয়ে স্বপ্ন দেখার বিলাসিতা সেখানে কাল্পনিক । আজ লাখো লাখো তরুণের কাছে সবচেয়ে অপ্রিয় এবং অপছন্দনীয় একটা শব্দ “বাংলাদেশের রাজনীতি ” । কেন অপ্রিয় হবে না ? কেন অপছন্দের হবে না ? যে রাজনীতিতে সততা, আদর্শ, নীতি, মূল্যবোধের কোন মুল্য নেই । যে রাজনীতিতে সৎ মানুষগুলো থাকে অসহায় । যে রাজনীতিতে পদত্যাগ করতে হয় নিষ্টাবান রাজনীতিবীদদের নিজের , এলাকাবাসীর আর নীতিবোধের সম্মান রক্ষার্থে । যে রাজনীতিতে হাস্সোজ্জল এবং সম্মানিত করা হয় দূর্ণীতিবাজ, অর্থ লুটপাঠকারী মন্ত্রীদের । যে রাজনীতিতে সমর্থন করা হয় চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী ছাত্রদের অনৈতিক, অবৈধ কার্যকলাপ । যে রাজনীতিতে প্রশাসনের লোকদের ব্যবহার করা হয় দলীয় কর্মী হিসাবে । যে রাজনীতিতে চিহ্নিত সন্ত্রাসী খুনীরা ক্ষমা পেয়ে যায় বিশেষ ক্ষমতা বলে । যে রাজনীতি জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে দেয় হরতাল উৎযাপন করার জন্য । এই সব বিষয় বিবেচনা করলে যে কোন সুস্থ মস্তিষ্কের মানুষ বলবেন ” হ্যা তরুণরা ঠিকই বলছে, তারা কেন রাজনীতি পছন্দ করবে ” । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি জানেন দেশের মোট জনসংখ্যার একটা বিশাল অংশ এই তরুণ প্রজন্ম । আপনারা নেতা-নেত্রী, বিশিষ্টজনেরা  আমাদের পথ প্রদর্শক । আপনাদের সঠিক পথ চলাই এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে সম্ভাবনাময় বাংলাদেশকে । কিন্তু দেশের বর্তমান যে অবস্থা আর রাজনৈতিক দলগুলোর যে পথ চলা তা দেখে আপনাদের নিকট থেকে আমরা কি শিখব ? তাহলে হরতাল, দূর্নীতি, বোমাবাজি, অন্যায়ের পক্ষপাতিত্ব , সৎ মানুষদের মূল্যহীন করা এই সবই কি উপহার দিয়ে যাচ্ছেন আমাদের এবং ভবিষ্যত প্রজন্মকে । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সব দোষ আপনার না । তবুও আপনাকেই সব দোষ দিতে হবে, কারণ আপনি যে আমাদের সবার অভিবাবক । অস্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিবেশের মধ্যে একটি দেশের উন্নয়ন কিভাবে সম্ভব । তাই আপনাকে এবং বিরোধী দলীয় নেত্রীকে অনুরুধ করব প্রতিহিংসা এবং রেষ-রেষির রাজনীতি পরিহার করুন । নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগীতা সৃষ্টি করুণ । অসুস্থ রাজনৈতিক প্রতিযোগিতা নয় , উন্নয়নের প্রতিযোগিতা । ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে কে কার চেয়ে দেশের বেশী উন্নয়ন করতে পারেন । তাহলে ক্ষমতা ঠিকিয়ে রাখার জন্য তত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল, আর ক্ষমতায় আসার জন্য তত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বহাল রাখার জন্য আন্দোলন করতে হবে না । তখন উন্নয়নের ভাল-মন্দ বিচার করে জনগনই আপনাদের বার বার ক্ষমতায় আসার সুযোগ করে দিবে । কখনো ভুলে যাবেন না ” জনগনই সকল ক্ষমতার উৎস ” ।  আর কিছু লিখতে পারছি না । অবশেষে ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তে ভেজা এই বাংলাদেশের উজ্জল ভবিষ্যত কামনা করে চিঠি শেষ করলাম ।

—-আল্লাহ হাফেজ—-

ইতি-
এমদাদুল হক শরীফ
২য় বর্ষ, লোক প্রশাসন বিভাগ
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট ।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s